bangla new sex গাঙ্গুলী পরিবারের অজানা কথা পর্ব ১ by Abhi003

bangla new sex choti. নমস্কার বন্ধুরা আশাকরি সবাই ভালো আছেন। পরিবারের রাজকুমার সিরিজ অনিবার্য কারনে বন্ধ করা হচ্ছে। যাকে নিয়ে গল্প সে আমায় বারন করেছে। এই গল্পটি গাঙ্গুলী পরিবারের তাহলে চলুন কোনো ভনিতা না করে শুরু করি। আমার নাম রোহিত গাঙ্গুলী বয়স ১২। আমার পরিবারে রয়েছে আমার জেঠু নাম শুভব্রত গাঙ্গুলী ও জেঠিমা সুমিত্রা গাঙ্গুলী। তার দুই মেয়ে রূপকথা গাঙ্গুলী বয়স ২৬ এবং দীপাঞ্জলি গাঙ্গুলী বয়স ২৩।

এক পরিবারের অজানা কথা by Abhi003

আমার বাবা নাম দেবাংশু গাঙ্গুলি ও মা দেবিকা গাঙ্গুলি। আমি বাবা মার একমাত্র সন্তান। তবে আমার দাদা ছিল চার বছরের বড়ো কিন্তু সে দুর্ঘটনায় মারা যায় তখন আমার বয়স মাত্র ৪। তবে আমার পরিবারের ধারণা দাদা কোনো ষড়যন্ত্রর শিকার।আমার সেজোকাকা নাম শুভরাংশু গাঙ্গুলী আর কাকী দেবারতি গাঙ্গুলী। আমার ছোটকাকা নাম রজতাভ গাঙ্গুলি ও তার স্ত্রী শ্রাবনী গাঙ্গুলি। এই দুই কাকা কাকীর কোনো সন্তান নেই। কিন্তু তা বলে তাদের মধ্যে কোনো মনোমালিন্য নেই।

bangla new sex

দুই কাকী আমায় আদর করে, খাইয়ে দেয়। আমাদের পরিবারের আর্থিক পরিস্থিতি খারাপ কখনোই ছিল না। পারিবারিক ব্যবসা খুব ভালোই চলছিল। আজ থেকে তিন বছর আগে আমার বড়োজেঠুর বড় মেয়ে রূপকথাদি পরিবারের অমতে গিয়ে বিয়ে করে।জেঠু তা সহ্য করতে পারেনা এবং তার হার্ট এটাক হয় আমরা কোনোভাবে তাকে বাচাই। বিপ্পতি হলো যখন রূপকথাদি ফেরত এলো জেঠু তা সহ্য করতে পারলো না জেঠু মারা গেলো।

জেঠি বিধবা হলো তখন জেঠির বয়স ৪৫। দেখতে খারাপ নয় ফিগারটা যাকে বলে রসালো। জেঠি তবে থেকে সাদা শাড়ি পরে ঘুরে বেড়ায়। রূপকথাদিও চুপচাপ থাকে কারণ জানে ও ঠিক কত বড় ভুল করেছে। আমাদের পরিবারের গুরুদেব আছেন যার কথা ঠাকুমা থেকে কাকিমা সবাই মান্য করেন। বাবাও এখন গুরুদেবকে মানেন। কারণ দাদার ভবিষ্যতবানী এই গুরুদেব করেছিল। বাবা প্রথমে না মানলেও যখন ঘটনাটা ঘটলো বাবা গুরুদেবকে অবিশ্বাস করতে পারলোনা। bangla new sex

গুরুদেব বাড়িতে এসেছেন। মা ও ছোটকাকি গুরুদেবের পা ধুইয়ে দিলেন। গুরুদেব বসলো জেঠি দূরে দাঁড়িয়ে ছিল।
গুরুদেব : সুমিত্রা মা এদিকে আয়।
জেঠি : বলুন বাবা আপনার কি সেবা করতে পারি
গুরুদেব: না মা কোনো সেবা নয় শুভব্রত চলে গেলো কি যে সর্বনাশ হলো

জেঠি: হাউহাউ করে কেঁদে ফেললো।
গুরুদেব :মা নিজেকে শক্ত কর। সব ঠিক হয়ে যাবে আমি করবো সব ঠিক।
বাবা : হা গুরুদেব আপনি ভরসা।
গুরুদেব : দেবাংশু এই ভরসা আগে করলে তোর বড় ছেলেকে হারাতে হতো না। যাক যা হবার হয়েছে। যে জন্য এখানে আসা সেটা বলি. bangla new sex

জেঠি :কি গুরুদেব ?
মা : কোনো বিপদ ?
বাবা: কি হয়েছে গুরুদেব দয়া করে বলুন
গুরুদেব: আহা এতো কথা বলিস না। মন দিয়ে শোন। যেটা বলছি এ বাড়ির বংশধরের কুষ্ঠিতে আমি বড় বিপদের ছায়া দেখতে পারছি।

বাবা: তার মানে?
গুরুদেব : প্রাণনাশের আশঙ্কা।
মা: না বলে চিৎকার করে উঠলো। এসব মিথ্যে বলুন আপনি মজা করছেন তাইতো
গুরুদেব:না মা এটাই সত্যি। bangla new sex

ছোটোকাকি: এর প্রতিকার কি?
গুরুদেব: আছে একটাই উপায় আছে
বাবা: কি উপায়?
গুরুদেব: উপায় খুব কঠিন দেবাংশু।

মা ,জেঠি বাড়ির সবাই বললো আপনি বলুন যত কঠিন হোক না কেন আমরা তা পালন করবো।
গুরুদেব: তা বেশ শোনো তবে রোহিত বাবার যা বিপদ তা বিবাহযোগে কাটবে।
মা: একটু ইতস্তত করে ঠিক আছে বাবা. bangla new sex

গুরুদেব: আসল কথা হলো এ পরিবারের দুজন মেয়েকে রোহিত বাবাকে বিবাহ করতে হবে। তাদের ভাগ্য রোহিত বাবাকে রক্ষা করবে
বাবা : আপনি এসব কি বলছেন। অসম্ভব এ হতে পারেনা।
মা : তুমি চুপ করো এ মুহূর্তে এছাড়া কোনো উপায় নেই। তুমি কি চাও আমার আরেকছেলেও আমায় ছেড়ে চলে যাক।
বাবা: বুঝতে পারছো গুরুদেবের কথার তাৎপর্য

মা: আমি জানতে চাইনা। আমি আমার ছেলেকে চিনি আর ওর সেফটি বুঝি ব্যাস। গুরুদেব আপনি সবার কুষ্ঠি বিচার করুন। আমি তো বুঝতেই পারছিনা হচ্ছেটা কি?
গুরুদেব: সবার কুষ্ঠি বিচার করে সুমিত্রা আর রূপকথার সাথে রোহিতের কুষ্ঠি মিলে যাচ্ছে।
জেঠি: ও আমার ছেলে আমি কি করে ওকে বিয়ে করবো। bangla new sex

রূপকথা: অসম্ভব ভাইকে বিয়ে না না।
জেঠি: চুপ কর মুখপুড়ি। তোর বাবা আজ তোর জন্য এখানে নেই।

গুরুদেব: যা ইচ্ছা করো তবে ১০দিনের মধ্যে বিয়ে হওয়া চাই। আমি এখন বিশ্রাম করবো। তবে আমি জলস্পর্শ করবো না। বিকালেই প্রস্থান করবো। এরপর আমি বিয়ের খবর পেলেই আসবো। বিকেলে গুরুদেব চলে গেলো। এদিকে বাড়িতে চিন্তার ছায়া। মা জেঠিকে বললো দেখো দিদি এছাড়া কোনো উপায় নেই। তুমি রাজি হয়ে যাও। রোহিত এসবের সম্বন্ধে কিছু বোঝে না। জেঠি বললো আজ বোঝেনা একদিন তো বুঝবে। রিয়ার শরীরের একটা চাহিদা আছে।

মা: আমার মনে হয় রিয়া ওর ভাইকে ওই নজরে দেখবে না। রিয়া রাজি তো।
জেঠি: হ্যা ও রাজি।
৭ দিনের মাথায় বিয়ে ঠিক হলো। বিয়ে হলো ১২ বছরে আমি অতসব বুঝিনা। চুপিসারে বিয়ে হলো আমি রিয়াদি আর জেঠি অর্থাৎ সুমিত্রার সিঁথি সিঁদুর দিয়ে রাঙিয়ে দিলাম। যাইহোক মা বললো তুই এখন থেকে জেঠি আর রিয়ার সাথে ঘুমাবি। bangla new sex

আমি বললাম কিন্তু কেন? মা বললো ওরা তোর বিয়ে করা বৌ তাই। পরেরদিন কাল রাত্রি আমি মায়ের কাছে শুলাম। তার পরেরদিন আমাদের বৌভাত সব নিয়মনিষ্ঠা মেনে অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো। রাতের বেলা আমাকে জেঠির ঘরে ঢুকিয়ে দিয়ে মা বললো একটুপর তোর জেঠি আর রিয়া আসবে চুপচাপ ঘুমিয়ে পড়বি। আমি বললাম কিন্তু। মা বললো কোনো কিন্তু না বলে বেরিয়ে গেলো। ফুল দিয়ে সাজানো খাটে বসে আছি।

এমন সময় শুনি কাকিমারা জেঠিকে বলছে বড়দি তুমি কি লাকি এরকম কচি স্বামী পেয়েছো। বাবুর সাইজও ভালো ৬ইঞ্চি। জেঠিমা ধুর কি যাতা বলছিস। সেজকাকি সত্যি বলছি আর এখন থেকে ওর সাথেই থাকবে নিজেই পরখ করে নিও। রূপকথাদিও এলো জেঠিকে বললো মা আমি ঘরে গেলাম। কাকিমারা বললো ওরে মা না সতীন বল যাও দিদি দুই সতীন মিলে কচি বরের আদর খাও। কাকিমারা চলে গেলো জেঠি ঘরে ঢুকে দরজা লক করে আমার দিকে এগিয়ে এলো। bangla new sex

তারপর আমার কপালে চুমু খেয়ে বললো অনেক রাত হয়েছে শুয়ে পর। রিয়াদি আমায় ঘুম পাড়িয়ে দিলো। পরদিন ঘুম থেকে উঠে দেখি গুরুদেব এসেছেন আমাদের আশীর্বাদ করতে। আমরা নিচে এলাম আমরা তিনজন গুরুদেবকে প্রণাম করলাম। গুরুদেব বললো আমার কথা শুনেছ দেখে আমি খুশি হয়েছি। আমার আরো কিছু বলার আছে। সবাই চিন্তিত কি বলবে গুরুদেব জানার জন্য অবশ্যই কমেন্ট করুন আর ততদিন ভালো থাকুন ও সুস্থ থাকুন

কেমন লাগলো গল্পটি ?

ভোট দিতে হার্ট এর ওপর ক্লিক করুন

সার্বিক ফলাফল 4.3 / 5. মোট ভোটঃ 124

কেও এখনো ভোট দেয় নি

10 thoughts on “bangla new sex গাঙ্গুলী পরিবারের অজানা কথা পর্ব ১ by Abhi003”

  1. সে বলতে গিয়েছিলো কেনো যদি প্রকাশ হলে অসুবিধা হয়। গাঙ্গুলি পরিবারের ক্ষেত্রে একই জিনিস হবে না তো। যা দেবেন একটু তাড়াতাড়ি দেবেন।

    Reply

Leave a Comment