sex golpo স্ত্রীর শরীরসুধা – 12

bangla sex golpo choti. আমার মাথার মধ্যে কিছুই ঢুকছিল না । সম্ভোগের চরম স্বর্গে তখন আমি । পয়তিরিশ বছরের যুবতী , এক মেয়ের মা , সোনালী রায়চৌধুরী । স্বপনের স্ত্রী । দুই উত্তেজক পুরুষের বাহুর বন্ধনে আমার দেহ । তাদের সম্ভোগের সুখ আমার নাভিতে উরুতে পেটে মাখানো । ওদের কামত্তেজনার উল্লাস ভরে দিয়েছে আমাকে । যোনিতে আর আমার ভরাট নিতম্ব সুখে ভরে দিয়েছে ওদের দুজনকে । দুই পুরুষের সঙ্গে সোহাগের আকুলিবিকুলিতে পাগল হয়েছে আমার ভরন্ত শরীর । যখন ওরা আমাকে করছিল , এক মুহুর্তের জন্যেও স্বপনের কথা মনে হয়নি আমার । কামকেলির বাসনামত্ত সুখে মগ্ন ছিলাম আমি ।

[সমস্ত পর্ব
স্ত্রীর শরীরসুধা – 11]

ওদের সুখ দিতে ব্যস্ত ছিল সারা শরীর । অনেকদিন পরে রবিকে নিতে সুখে শরীর ভরে উত্ছিল কারণ রবি-ই তো ছিল সেই প্রথম পুরুষ যে আমাকে চরম মিলনের সুখ দিয়েছিল আমার বিয়ের পনের বছর পরে । যে সুখ স্বপন জানতই না যে আমাকে দিতে পারেনি ও । রনেন-দা টিভির রিমোট অন করে দিয়েছেন । রবি উলঙ্গ অবস্থাতেই উঠে গিয়ে টিভির তলাতে একটা বক্সের ওপরে একটা বোতাম টিপলো । ইস স্ক্রিনের ওপর কে ? রনেন-দার সঙ্গে আমার চরম মিলন দৃশ্য । ইস লজ্জায় করছে আমার । কামনাতপ্ত আমার মুখের ওপর ক্লোজ-আপ । কে তুলল এই ছবি ? রবি নাকি ?

sex golpo

তখন তো মনেই ছিলনা কোথায় ও । ইস কি লজ্জা । নিল ছবির নায়িকাদের মত আমি রনেন-দার সঙ্গে উত্তপ্ত ভালবাসাতে মগ্ন । চুক চুক করে আমার কমলালেবুর কোয়ার মত ঠোট দুটো খাচ্ছেন রনেন-দা । আর অসভ্যের মত চুম্বনের খেলাতে মগ্ন আমি উনার সঙ্গে । কি লজ্জা । জিভে জিভ আমাদের । অসভ্য রবি । বলল কি সোনালী, ভালো লাগছে নিজেকে দেখতে ? স্বপন দেখলে তো মনে করবে তুমি রনেন-দার বউ । ইস ও কি করছি আমি ? রনেন-দার বুকে মুখ ঘষছি ভালবাসতে ।

চুমু দিছি রনেন-দার নিপলে আর আলতো আলতো সুখের কামড় অসভ্যের মত । কেন জানিনা বিদেশী ছবির মেয়েরা যেমন পুরুষদের সুখ দেয় সেরকম করতে ইচ্ছে করছিল আমার । ইস মাগো । পুরো সঙ্গমের দৃশ্য । রনেন-দা উনার বিরাট লিঙ্গ আমার যোনিতে ঠেসে দিচ্ছেন । ক্যামেরা কিন্তু রনেন-ডাকে দেখছে না । পুরো আমার দিকে ফোকাস করা । আমার মুখের চরম সুখের প্রতিটি অভিব্যক্তি ধরে রেখেছে । ইস মাগো সুখে পাগল হয়ে যাচ্ছিলাম আমি তখন । ভালবাসা ভরা আমার নারীদেহের প্রতিটি সুখের শীত্কার সোনা যাচ্ছে । sex golpo

দারুন উত্তেজনা হচ্ছিল আমার । আমিও পারি দুই পুরুষের সঙ্গে সঙ্গম করতে , তাদের নিজের শরীরে নিতে , আর সুখে তাদের আর আমার শরীর ভরে দিতে । স্বপন কি লাগে এদের কাছে । রবি আর রনেন-দা দুজনেই পেশীবহুল সুপুরুষ । আমার নারীশরীর কিকরে আনন্দে আর উত্তেজনাতে ভরে দিতে হয় তা দুজনেই জানেন । রবির সঙ্গে মিলন আমার মানসিক সুখ দেয় আর রনেন-দা পুরোপুরি শারীরিক । রবি যখন আমাকে আদর করে , তখন পুরোপুরি আনন্দে গলে যায় আমার শরীর । মনে হয় যেন আমি রবির বিবাহিতা স্ত্রী ।

নিবিড় ভালবাসাতে ভরে দেই দুজনে দুজনকে যে ভালবাসা সত্যিকারের পেত স্বপন যদি আমাকে শারীরিকভাবে সুখী করতে পারত । মিলনের চরম ক্ষণে আমার যোনি দিয়ে চেপে ধরি যখন রবি-কে সুখে আদরে ভালবাসায় যে আমার শরীর গলে পরছে ও বুঝতে পারে । সুখের সপ্তম স্বর্গে উঠে যাই আমরা । মন্দার-মনিতে ওকে বুঝিয়ে দিয়েছিলাম যে আমার নারীশরীরের অধিকার ওর । যখন চায় পাবে আমাকে । আর আজ তাই যখন আমরা ভালোবাসলাম সেই অধিকার পরিপূর্ণভাবে বুঝে নিল ও । sex golpo

ক্যামেরা-তে আমার সঙ্গে রবির সেই সঙ্গম দেখে উত্তেজিত হয়ে যাচ্ছিলাম আমি । এ যেন ঠিক স্বামী-স্ত্রীর আকুলিত সঙ্গম । বিবাহিতা নারী যেমন পুরুষকে ভালবাসতে আঁকড়ে ধরে তেমন করে সঙ্গম করছিলাম আমরা । আলতো আলতো চুম্বন আর ভালবাসা । সেই সময় কেন জানিনা রনেন-দাকে দেখা যাচ্ছিলনা ফোকাস-এ । আচ্ছা তখন তো কেউ তুলছিল না , ওরা কি ইচ্ছে করে বিছানার এক জায়গাতে করছিল ? কে জানে , কিন্তু ভীষন ভালো লাগছে আমাকে আর রবিকে । মিষ্টি হেসে শরীরের ভালবাসাতে ভরিয়ে দিছি ওকে ।

তবে সুধু মিষ্টি নয় একটু অসভ্য-ও । স্তন গুজে দিছি ওর মুখে আনন্দে । মৃদু , চাপা কিন্তু প্রচন্ড কামভরা শীতকারে জানাচ্ছি আমার দেহসুখ । কি সুন্দর লাগছে ক্যামেরা-তে আমার উলঙ্গ শরীর । আগে তো কখনো দেখিনি নিজেকে সঙ্গম করতে । দারুন এই অভিজ্ঞতা । ওরা দুজনে উলঙ্গ হয়ে আমার পাশে । দেখছে আমার মুখের অবস্থা । sex golpo

আর যেই চরম সুখের ক্ষণ আসছে , জোরে জোরে আমার স্তন টিপে ধরছে অসভ্যের মত । হ্যা ওদেরই তো সাজে এই অসভ্যতা । প্রচন্ড জোরে স্তন চাপনে যন্ত্রণা হচ্ছে শরীরে , কিন্তু তাতেও কি সুখ । সহ্য করে যাচ্ছি আমি । রনেন-দা হেসে রবিকে বললেন , সোনালীর বেশ ভালো লাগছে মনে হচ্ছে । আমি চাপা স্বরে বললাম ভীষণ , আপনারা ভীষণ অসভ্য । মরে যেতে ইচ্ছে করছে আপনাদের হাতে ।

সেই অপূর্ব ভালবাসার মধ্যে রনেন-দা আমাকে বললেন দারুন মানিয়েছে তোমাকে আর রবিকে । ভালো লাগছে না দেখতে ? লজ্জায় লাল হয়ে বললাম উমম । রনেন-দা বললেন এবার একটু চানঘরে যাও ওর সঙ্গে । একসঙ্গে চান করলে আরো ভালো লাগবে তোমাদের দুজনকে । আমি উঠতে যাব, রবি আমাকে একটা নতুন অন্তর্বাসের সেট দিল । উফ কি সুন্দর । বিদেশী নিশ্চয় । যেমন পাতলা আর নরম । লাল রঙের । হেসে বলল পড়ে নাও । একসঙ্গে চান করতে হবে তো । আমরা দুজনে বাথরুমে ঢুকলাম । sex golpo

রনেন-দার হাতে ক্যামেরা । কি ছোট , নিশ্চয় এটাও বিদেশী । বললেন রনেন-দা নতুন বরের সঙ্গে হানিমুনে এসেছ । মেমরি-টা ধরে রাখতে হবে তো । হেসে বললাম আপনি ভীষণ ভালো । রবি আর আমি অন্তর্বাস পরে চানঘরে প্রবেশ করলাম । পেছনে রনেন-দা । নতুন এক আনন্দের সন্ধানে পাগল আমি ।রনেন-দা ছবি তুলছেন আমাদের । ইস কি অসভ্য । আমি আর রবি অর্ধনগ্ন অবস্থাতে ঢুকলাম হোটেলের মার্বেলের বাথরুমে । আয়নাতে কি সুন্দর মানিয়েছে রবিকে আর আমাকে ।

রনেন-দার সামনে চুম্বন করছি আমরা । একসঙ্গে দেখছি নিজেদের আয়নাতে । ইস ঠিক যেন নতুন বর বউ । কি সুন্দর । রবির পেশল দেহ আর আমার ভরন্ত শরীর । পুরো টানটান মেদহীন । আমার কোমর জড়িয়ে রবি । পাছাতে একটা হাত । অন্য হাতটা এগিয়ে এলো আমার ভরন্ত বুকের দিকে । রনেন-দার দিকে মুখ করে আমার স্তনে ভীষণ আদর শুরু করে দিল অসভ্যটা । ব্রেসিয়ারের ভেতরে পুরো উত্তেজনাতে শক্ত আমার বোটা দেখা যাচ্ছে । রবি জোরে জোরে টিপছে ওই জায়গাটা । সুখে আরামে কাতরাচ্ছি আমি । আর থাকতে না পেরে রবির মুখটা টেনে নিয়ে গুজে দিলাম আমার একটা স্তনের ওপরে । sex golpo

আমার বোটা চুষছে রবি । ওই আদরে আমার বোটা পুরো খাড়া । চক চক করে চুষছে আর কামড়াচ্ছে । ক্যামেরার সামনে বোটা চোসাছি ইস মাগো । ইস অসভ্যের মত উত্তেজনা । পারমিতার সঙ্গে যে সব নিল ছবি দেখেছি তার নায়িকা ঠিক আমি যেন । আর তাদের চেয়ে অনেক সুন্দরী আমি । ওদিকে উলঙ্গ রনেন-দা ক্যামেরা নিয়ে । আমাদের দেখে খাড়া হয়ে ওনারটা আরো বড় আকার ধারণ করেছে । তার কারণ তো আমি জানি-ই । লাল অন্তর্বাসে আমাকে দেখে যেকোনো পুরুষেরই এটা হতে বাধ্য ।

কিন্তু রনেন-দার উলঙ্গ অবস্থা দেখে আমার শরীর-তার মধ্যে যে ঘুমন্ত আদিম নারী জেগে উঠেছে তার আমি কি করব । রবির সঙ্গে আদরের মধ্যে আমার চোখের সে ভাষা কি পড়তে পারলেন রনেন-দা ? একটা অসভ্য ইঙ্গিত করলেন আমার দিকে তাকিয়ে । আমার মধ্যেকার আদিম নারী সেই ভাষায় সায় দিল । আর কি থাকতে পারেন রনেন-দা ? এগিয়ে এসে রবির বাহুর বন্ধন থেকে কেড়ে নিলেন আমাকে । আর ক্যামেরা দিলেন ওর হাতে । বসের কথা সুনে রবি সরে গেল । আর চানঘরের শাওয়ারের পাশে আমাকে চেপে ঠেসে ধরে শরীরের সুখ দিতে শুরু করলেন উনি । sex golpo

আমার মুখে বুকে ঘরে এঁকে দিলেন চুম্বন আর দাঁতের দাগ । আমিও আদিম নারীর মত কামড় দিলাম রনেন-দার গলায় ঘাড়ে । তারপরে পুরুষের চরম বাসনা চরিতার্থ করার জন্য নিচু হয়ে রনেন-দার বুকের নিপলে আসতে আসতে কামড় দিতে শুরু করলাম । উফ পাগলের মত কামার্ত হয়ে উঠবেন উনি এবার । আঃ । উপভোগ করছেন আমার কামড় । আমিও থাকতে না পেরে উলঙ্গ রনেন-দার লিঙ্গে সুরসুরি দিতে শুরু করেছি । ইস রবি ছবি তুলছে – আরো উত্তেজনা । লোমশ বুকে আলতো আলতো নারীর কামড় । কোনো পুরুষ কি থাকতে পারে । অন্য হাতে বিরাট লিঙ্গে সুরসুরি ।

পুরো খাড়া করে দিয়েছি ওনার । আর থাকতে না পেরে আমাকে উলঙ্গ করতে চাইলেন উনি । ইস আমার সুন্দর লাল প্যান্টি-তে ওনার হাত । কামেরার সামনে উলঙ্গ করছেন আমাকে । আমার কোনো হাত নেই । আমার কালো যৌনকেশ বেরিয়ে আসছে ।ইস মাগো । আমার যোনিতে সুরসুরি দিচ্ছেন রনেন-দা । আধখোলা ব্রা এলিয়ে পরেছে । রবি আগেই তার ওপর অত্যাচার করেছিল । রনেন-দা পুরো খুলে দিলেন । রবির কামেরার সামনে পেছন থেকে জড়িয়ে আমাকে চেপে ধরেছেন । কামেরার সামনে আমার যোনি ফাক করে কুরকুরি দিচ্ছেন । মাগো কি অসভ্য | sex golpo

আমার শরীর চেপে ধরলেন রনেন-দা । বললেন সোনালী কি করব আর । নাও আর পারছিনা ।আমি ইঙ্গিত বুঝলাম । যোনি র দেয়াল দিয়ে কামড়ে ধরলাম ওনার লিঙ্গ । তীব্র আনন্দের বন্যা বইছে শরীরে । আর থাকতে পারলাম না আমি । চোখ দিয়ে অসভ্য ইঙ্গিত করলাম । বিরাট লিঙ্গটা গেঁথে দিয়েছেন শরীরে । কি জোর । আমার পুরো শরীরের ভার নিয়ে জোরে জোরে যোনি ঠেসে ধরছেন । আমার ইঙ্গিতে থাকতে পারলেন না উনি । বললেন হবে এবার ? হাসলাম বললাম তোমার ?

উনি বললেন আর পারছিনা মাগো । রনেন-দা বললেন এস । বলে আমার গলা জড়িয়ে ঠেসে ধরলেন শেষবারের মত লিঙ্গটা । কাতরে উঠলাম আমি । তীব্র বেগে বেরিয়ে এলো আমার রাগরস । উফ । ওই অবস্থাতে বীর্যপাত করছেন উনি । রবি ক্যামেরা ফোকাস করেছে। .. ইস আমার যোনিতে । ঢেলে দিচ্ছেন এক এক করে । ইস কি লজ্জা । পুরো যোনি ভরে দিচ্ছেন । আর পারছিনা । মাগো । তীব্র সুখে চুমুতে চুমুতে ভরিয়ে দিলাম উনার ঠোঁট । sex golpo

বিছানাতে অবসন্ন হয়ে পরে ছিলাম রনেন-দা আর রবির মাঝখানে । খুব ভালো লাগছিল । কি ক্লান্তি কিন্তু কি আনন্দ । সারা শরীরে ওদের ভালবাসা মাখানো । রনেন-দা বললেন ওঠো সোনালী , এবার বরের কাছে যেতে হবে তো । দুষ্টু হাসলাম আমি । আমার বাম স্তনে আলতো করে হাত রেখে বললেন রনেন-দা , কত স্মৃতি রেখে গেলে বল এই ঘর-তাতে তাই না ? হাসলাম । উনি বললেন আসবে তো মাঝে মাঝে এই ঘরে ? আমাদের অফিসের নামেই বুক করা আছে । কোনো অসুবিধে হবে না । আরো কত বন্ধু এনে দেব তোমাকে । যেমন পছন্দ । তোমার সারা শরীর ভরে দেবে আনন্দে । একটু অবাক হলাম । বললাম। .

– মানে ?

– বুঝলে না । কত ক্লায়েন্ট আসে আমাদের । তোমার মত সুন্দরী-কে পেলে তাদের কত ভালো লাগবে বল তো ? আর তোমার-ও নিশ্চই ভালো লাগবে । সারা শরীর ভরিয়ে দেবে আরামে । আর গিফট-ও দিতে পারে ।

– কি বলছেন আপনি ? কিকরে ভাবতে পারলেন ? আমি ? sex golpo

– ভালো করে ভেবে দেখো সোনালী । তোমার এই সুন্দর শরীর । বর তো কোনদিন-ই এই খিদে মেটাতে পারবে না তোমার । আমি আর রবি দুজনে কত সহজে সেটা পারি । পনের বছরে বিবাহিত জীবনে যা পাওনি এক দুপুরে তা পেয়ে গেছ আমাদের কাছে । আমাদের সঙ্গে কাজ করবে না ? আমাদের কোম্পানির পার্টনার বানিয়ে দেব । এক বছরে দেখবে বরের চেয়ে অনেক বেশি রোজগার করতে পারবে । তারপরে কত শাড়ি , ড্রেস , আউটিং , বিদেশ যাওয়া , নতুন এক জীবন । সেই জীবন ভালো লাগবে না তোমার ?

– মানে ? আপনি কি ভাবছেন আপনাদের সঙ্গে আমি টাকার জন্যে ?

– না সোনা । মোটেও তা ভাবিনি । আমরা তো ভদ্রলোক । আর তুমিও ঘরের বউ । সুধু একটু ভালবাসা হয়েছে । তাতে কি ? ভরা যৌবন তোমার । ঘরে তাকে তুলে রাখতে আছে কি ? সবাইকে না দিলে তো আনন্দ হয় না কি বল ?

ঘুমে আর আরামে চোখ বন্ধ হয়ে আসছিল আমার । কিন্তু কেমন কেমন লাগছিল ওদের কথাগুলো ।

– তাহলে কি সব বলছেন । ক্লায়েন্ট কেন ? সুধু আপনাদের সঙ্গেই তো। . sex golpo

– হ্যা আমরাও আদর করব । ওরাও করবে । সবাই মিলে আদর করব তোমাকে । সুধু ভারতীয় নয় । বিদেশী-রাও থাকবে । দেখবে কেমন ভালো লাগে ।

– মানে ? আমাকে কি ভেবেছেন ? আপনাদের কোম্পানির ভাড়া করা রক্ষিতা আমি ? আমি চাইনা কিছু । চললাম এখনি ।

অদ্ভুত একটা হাসি হাসলেন রনেন-দা । বললেন তুমি যেতে পারো এখুনি । আমরা ভদ্রলোক । তুমিও ভদ্রমহিলা । আমরা মহিলাদের সম্মান করতে জানি । কিন্তু একটা কথা মনে রেখো । ক্যামেরা-তে তোমার সারা শরীরের যে সব লীলাখেলা ধরা পরে আছে তা সব সোশ্যাল মিডিয়া-তে গেলে তোমার কি হতে পারে সেটা প্লিস একটু ভেবে দেখো ।

এখনো তো ভদ্র সংসারে আছ । তোমার মেয়ের কি হবে ভেবে দেখেছ ? মার ছবি সারা ইন্টার-নেট-এ । স্কুলের বন্ধুরা দেখবে । তাদের মা-রা দেখবে । সারা পাড়া জানবে । ক্যামেরা-তে তোমার প্রতিটি অন্তরঙ্গ মুহুর্তের ছবি , তোমার সঙ্গমকালীন মুখের ভঙ্গি , দেহের সুখের আওয়াজ , সব জানতে পারবে সবাই । কি দারুন পপুলারিটি হবে বল ? সহ্য হবে তো ? sex golpo

নিমেষের মধ্যে আমার পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যাচ্ছে । কোনো চোরাবালি-তে তলিয়ে যাচ্ছি কি আমি ? পর্দায় আমার ভিডিও চালিয়ে দিয়েছে রবি । ও জামাকাপড় পরে নিয়েছে । রনেন-দাও । আমি উলঙ্গ । ওদের সামনেও । পর্দা-তেও । চানঘরে তীব্র সঙ্গম । আমার প্রতিটি মুখের ভঙ্গি ক্যামেরা-তে ধরা । তীব্র সুখে নারী কিকরে উল্লাসে মেতে ওঠে । আমি দুচোখ ঢেকে বসে পরলাম । আর পারছিনা । মাগো ।

কখন নিজের শরীরটা একটা বেড কভার-এ ঢেকে নিয়েছিলাম জানিনা । চোখ ঢেকে অনেকক্ষণ পড়ে ছিলাম বিছানার পাশে । প্রচন্ড সঙ্গমে শ্রান্ত শরীর আর দিতে পারছিল না । শারীরিক আর মানসিক অবসাদে চুর্ণবিচুর্ণ হয়ে গিয়েছিলাম আমি । পুরো বুঝে গেছিলাম ওরা দুজনে এবার আমার শরীর-টাকে ব্যবহার করবে ওদের ব্যবসার জন্যে । আর আমার ওদের কথা মেনে নেওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই । লজ্জায় দুঃখে ভাবছিলাম কি করলাম আমি ? কিছুক্ষণের সুখের জন্যে কেন মেনে নিলাম এই ভবিষ্যত-কে । কিন্তু কেন জানিনা এত অনিশ্চয় ভবিষ্যত সত্তেও শরীরটা পরিপূর্ণতায় ভরে উঠেছিল ।

 

কেমন লাগলো গল্পটি ?

ভোট দিতে হার্ট এর ওপর ক্লিক করুন

সার্বিক ফলাফল 3.3 / 5. মোট ভোটঃ 11

কেও এখনো ভোট দেয় নি

1 thought on “sex golpo স্ত্রীর শরীরসুধা – 12”

Leave a Comment