baba meye sex পিতার রাজকন্যা – 6

bangla baba meye sex choti. উদ্বোধনী শেষ হতেই তিনি দ্রুত পা চালিয়ে চলে আসেন গ্রিনরুমে| সেখানে একা আয়নার সামনে গালে তুলো ঘষছিলো| ওকে একা পেয়ে তিনি দ্রুত গ্রীনরুমের দরজা বন্ধ করে এক লহমায় ওকে টেনে এনে ওকে দেওয়ালের সাথে বাঁহাতে ঠেসে ধরে ডানহাত ওর বুকে তুলে নির্মমভাবে ওর ফুলে ওঠা আকর্ষনীয় স্তনদুটি পরপর কামিজসহ থাবা মেরে মেরে চটকাতে করতে শুরু করেন|
-“আঃ,.. বাপ্পী!” শালিনী অস্ফুটে কঁকিয়ে ওঠে “কি করছো তুমি এখানে!..”

[সমস্ত পর্ব

পিতার রাজকন্যা – 5]

-“উফ,.. আমায় পাগল করে দিচ্ছিস তুই! উম্ম্হ.. কি পেয়েছিস কি তুই!”
-“আঃ, বাপ্পী লোকে দেখে ফেলবে … ইশ!.. বুক থেকে হাত নামাও!” শালিনী চাপা অথচ আশঙ্কিত গলায় বলে ওঠে..
-“না!” শালিনীর স্তনদুটি উত্তেজিতভাবে দ্রুত পালা করে মোচড়াতে মোচড়াতে ওর বুকের নরম তরতাজা মাংস থাবায় চটকাচটকি করতে করতে ওর পিতা উত্তপ্ত নিঃশ্বাস ছাড়েন.. তিনি মুখ নমিয়ে ওর ঠোঁটে একটি ভিজে চুমু খান “উম্ম্হ.. ওঃ,.. কিভাবে তুই মানুষগুলোর হৃদয় পোড়াচ্ছিস জানিস! এত সুন্দরী হতে কে বলেছে তোকে?”

baba meye sex

-“হিহি তাই? সবার এমন অবস্থা?” শালিনী এবার ফিক করে হেসে সুন্দর ভঙ্গিতে আড়চোখে চায় পিতার পানে..
-“উম্ম তুমি জাননা যেন দুষ্টু! আর যাদের মালা দিচ্ছ তাদের কি অবস্থা তো তারাই জানে!”
-“হিহিহিহি.. উমম..” শালিনী চোখে ঝিলিক তুলে হাসে|
-“অথচ অমন পাগল করা বুকদুটো শুধু আমিই এমনভাবে চটকাতে পাচ্ছি! হাহা..”

-“উম.. ধ্যাত!” শালিনী আদূরেভাবে মুখ ঝামটে ওঠে পিতাকে|
-“তোর গলাটাও মাইকে খুব মিষ্টি লাগছিলো!”
-“উম.. তাই?”
-“ইশ দেখো নিজের প্রশংসা শুনেই কেমন আহ্লাদিপনা করছে আমার নরম কবুতরী!” রজতবাবু জোরে মোচড় দেন মুঠোভরা নরম স্তনে| baba meye sex

-“হিহিহি.. উমম .. উফ বাপ্পী, একটু আস্তে টেপো নাআআ..” নাকিসূরে বলে ওঠে তাঁর মেয়ে “আর তুমি খুব বাজে! হাততালি দিলে না একবারও!”
-“উম্ম” ডানহাতে শালিনীর বুকে অন্যায় কাজ চালিয়ে যেতে যেতে বাঁহাতে ওর পিতা এবার ওর ময়াল বিনুনি তুলে নেন “উম.. জানি, ঠিকাছে, এবার থেকে দেব!”
-“উমমমম..”

-“এটা আমার করে দেওয়া! কি সুন্দর না?”
-“হ্যা.. পৌলমী টান মেরেছিলো!” শালিনী ঠোঁট ফুলিয়ে বলে|
-“হমমম”
-“উফ বাপ্পী, এবার আমার ডিবেটের সময় হয়েছে!”
-“তাই নাকি? কি নিয়ে ডিবেট?” baba meye sex

-“দেখতেই তো পাবে..!”
-“উম্ম্হ..” রজতবাবু এবার মেয়ের বিনুনি ছেরে দুহাতে মুঠো পাকিয়ে তোলেন ওর দুটি উদ্ধত স্তন, শক্ত হাতে চটকে চটকে, মলে মলে মনের ঝাল মেটাতে থাকেন|
-“উউউ..” শালিনী আদূরে স্বরে মুখ সরু করে গুমরে ওঠে বুকটা একটু সামনের দিকে ঠেলে, কিন্তু এবার পিতাকে বাধা দেয় না| ধৈর্য্য ধরে পিতাকে স্তনসুখ মেটাতে দেয়, নিজের দুপাশে দেয়ালে দু-হাতের তালুকে বিশ্রাম দিয়ে নিজের বুক তাঁর উদ্দেশ্যে মেলে ধরে|

“হম” বেশ কিছুক্ষণ ভালো করে দুহাতে কষে চটকানোর পর রজত মল্লিক শালিনীর দুটি স্তন মুষ্টিমুক্ত করেন “ডিবেটের সময় অন্তত বুকে ওড়না দাও!”
-“উন্হুঃ!” শালিনী মুচকি হাসে বুকের উপর কুঁচকে যাওয়া কামিজ টানটান করতে করতে “তা’লে জিততে পারবো না এত সহজে!”
-“দুষ্টু পরী আমার!” রজতবাবু মেয়ের গাল টিপে দেন| তারপর ওর নরম ডানহাতের তালুটি এনে পাজামার উপর দিয়ে নিজের উত্তপ্ত, শক্ত খাড়া হয়ে থাকা যৌনাঙ্গের উপর এনে চাপেন, অন্য হাতে ওর চিবুক তুলে আদর করেন| baba meye sex

-“উমমম…” পিতার শক্ত পুরুষাঙ্গ পাজামার উপর দিয়ে নিজের নরম তুলতুলে, উষ্ণ তালু দিয়ে ডলতে ডলতে শালিনী মুখে একটি অত্যন্ত আকর্ষনীয় টেপা হাসি নিয়ে তাকায় ওঁর পানে “ইশ বাপ্পী, কি করেছো কি!”
-“উমমম” রজতবাবু মেয়ের দু-কাঁধে দুহাত রেখে মুখ একটু নামিয়ে প্রথমে ওর ফোলা, রঞ্জিত ঠোঁটদুটি জিভ দিয়ে একবার চাটেন থুতু মাখিয়ে, তারপর প্রথমে তলার ঠোঁট, তারপর উপরের ঠোঁট মুখে নিয়ে অল্প কামড়ে চোষেন “উম্ম্মহঃ…” ওর সুগন্ধি অধররঞ্জনী তাঁর খেতে সুস্বাদু লাগে..

-“ইশ বাপ্পী! আমার লিপস্টিক মুছে যাবে!” বকুনি লাগে শালিনী পিতাকে ওঁর পুরুষাঙ্গ মালিশ করতে করতে|
-“উমমম..” উত্তরে মেয়ের দুটো ঠোঁটই মুখে পুরে নেন রজত মল্লিক| লজেন্সের মতো চুষতে থাকেন|
-“হমমম!..” শালিনী মৃদু গুমরে ওঠে| তবে নিষ্ঠাভরে পিতার যৌনাঙ্গ ডলতে ডলতে ওঁকে তার ঠোঁটদুটো চুষতে দেয়|
-“উমমম..” খানিক্ষণ ভালো করে চোষার পর রজতবাবু শালিনীর ভেজা ঠোঁটদুটো অপাঙ্গ লেহন করেন আবার| baba meye sex

-“উমমম!” শালিনী নিজের পিতার লালায় ভেজা টসটসে ঠোঁটদুটি ফুলিয়ে ওঠে..,ওঁর লেহনরত জিভে মিষ্টি একটি চুমু খায়|
-“অম্ম” মেয়ের নরম ঠোঁটদুটি সেই অবস্থাতেই আবার মুখে পুরে নেন রজতবাবু, একটু কামড়ান .. তাঁর মুখের ভিতর শালিনীর ঠোঁটদুটি এবার দুষ্টুমি করে তাঁর জিভটা টেনে নেয়, আলতো কামর দেয়..
পিতা এবং দুহিতার এমন চুম্বন কিছুক্ষণ চলে| তারপর শালিনীর ঠোঁটদুটো মুখ থেকে বার করে ওর কপালে একটি চুমু খান রজতবাবু|

-“উমমম..” শালিনী তার উত্তপ্ত ভেজা ঠোঁটদুটি পিতার চিবুকে ঘষে, বলে ওঠে “উম্ম বাপ্পী, আমার সব কাজ কেমন হলো তা কি একটুও দেখলে বাপ্পী, নাকি শুধু আমার বুকের দিকেই তাকিয়ে রইলে??” কথাটা বলতে বলতে সে পিতার যৌনাঙ্গ মলতে মলতে নিজের বুকটা আকর্ষনীয় ভঙ্গিতে ওঁর বুকের কাছে উঁচিয়ে তোলে অল্প|
-“উম্ম্ম্হ..” রজতবাবু ওর সিঁথিতে চুমু খান, ওর গালে হাত বুলিয়ে বলেন “আমার রূপের রানী গুনের রানী পারফর্ম করবে আর আমি তার প্রশংসা করবো না!” baba meye sex

-“উম্ম..” শালিনী দৃষ্টতই আহ্লাদিতা হয়ে ওঠে পিতার সাধুবাতে,… মুচকি হাসিতে সুন্দর মুখ উজ্জ্বল করে সে পিতার পুরুষাঙ্গ চাপতে চাপতে ওঁর মুখপানে চায় “উম্ম বাপ্পী, বাড়িতে গিয়ে কিন্তু আরও অনেক প্রশংসা চাই! সবার কাছে করতে হবে!”
-“উমমম.. অবশ্যই! আমার প্লেজার!”

শালিনী খুশি হয়ে হেসে পিতার ঠোঁটে সুন্দর করে একটি চুম্বন করে| তারপর ওঁর যৌনাঙ্গ থেকে হাত উঠিয়ে পেছন ঘুরে আয়নার সামনে এসে লিপস্টিক নিয়ে ঠোঁটে আঁকতে আঁকতে বলে “উমমম… সব তুমি খেয়ে নিয়েছে! আমায় আবার নতুন করে মাখতে হবে!”

-“হমমম..” রজতবাবু মেয়ের পেছনে ঘনিষ্ঠ হয়ে এসে ওর সরু একরত্তি কোমর দুহাতে বেড় দিয়ে জড়িয়ে ধরে, নিজের উত্তেজিত শিশ্নদেশ ওর নরম উত্তপ্ত নিতম্বের মাঝে জোরে দাবিয়ে চাপ দিতে দিতে ওর ঘাড়ে, কাঁধের উন্মুক্ত অংশে ছোট ছোট কামর ও চুমু দিতে দিতে বলেন “আমার কচি বউয়ের ঠোঁট আমি যতখুশি চুষবো!” baba meye sex

-“আমি তোমার কচি বউ?” শালিনী লিপস্টিক মাখতে মাখতে হেসে ওঠে আয়নায়..
-“হমম.. উমমম” রজতবাবু ওর নরম উত্তপ্ত ত্বকে মদির চুমু খান|

লিপস্টিক মাখা শেষ হয়ে গেলে শালিনী নিজেকে ছাড়িয়ে পিতার দিকে ঘুরে মুখোমুখি হয় “এবার যাই,.. বক্তৃতা শেষ হয়েছে মনে হচ্ছে!”
-“হমম তার আগে ..” রজতবাবু ডানহাত মেয়ের বুকে তুলে কামিজে সগর্বে স্ফীত ওর দুটি খাড়া খাড়া স্তন ধরে ধরে নরম স্তম্ভদুটি পরপর টেপেন, তারপর বলেন “এবার যাও!”
-“অসভ্য..” শালিনী হেসে পিতার বুকে ঠেলা মেরে আকর্ষনীয় ভঙ্গিতে গ্রীনরুমের দরজা খুলে বেরিয়ে যায় স্টেজের উদ্দেশ্যে|

এবার দর্শকের আসনে এসে বেশ কিছুটা প্রসন্নচিত্তেই বসেন| তর্কানুষ্ঠান চলাকালীনও শালিনী যেন সকলের নজর শুধু ওর দিকেই টেনে রাখে| ওর প্রতিপক্ষ মেয়েটিও বুঝতে পারে যে তার সৌন্দর্য্য শালিনীর ধারেকাছে না আসায় লোকে এবং বিচারকমন্ডলী শুধু শালিনীর কথাই মন দিয়ে শুনছে এবং দৃষ্টতই সমর্থন করছে| baba meye sex

রজতবাবু মুগ্ধ চোখে দেখেন মেয়েকে| শালিনীর প্রত্যেকটা কথা বলার ভঙ্গি যে কি মনোরঞ্জক!… আর ওর উদ্ধত দুখানা স্তনের গরিমা আবারো পাগল পাগল করে তোলে ওনাকে| তিনি জানেন কিছুক্ষণ আগেই তিনি এই দুটি দু-হাতে ভরে মনের আশ মিটিয়ে চটকিয়েছেন… কিন্তু অমন আকর্ষণ যেন কিছুতেই স্তিমিত হবার নয়! পাজামার নিচে জান্গিয়ায় আবদ্ধ উত্তেজিত পুরুষাঙ্গ তাঁর দপদপ করছে এখন!.. তিনি বুঝতে পারেন এর কারন তাঁর দুহিতা নিজের অপূর্ব সৌন্দর্য্য সম্পর্কে খুবই সচেতন|

এবং সেই রূপের প্রতিটি খুটিনাটি, সুক্ষতম আঙ্গিকও মেয়েটি সুনিপুন দক্ষতায় ব্যবহার ও উপস্থাপন করতে জানে, যেন এটি ওর সহজাত বৃত্তি! ওর প্রত্যেকটি নড়াচড়ার ভঙ্গিতেই তা প্রকাশিত| যেভাবে ও নিজের বক্তব্য প্রকাশ করতে গিয়ে হাত নাড়ার ভঙ্গি করছে, বসার অবস্থান ঠিক করতে গিয়ে স্ফীত বুক উঁচিয়ে তুলছে মারাত্মক ভঙ্গিতে, মাঝে মাঝে সরু হাতের আঙুল আলতো করে গালে, চিবুকে ছুঁয়ে যাচ্ছে. baba meye sex

মুচকি হাসিতে সৌন্দর্য্যের ক্ষুরধার চাউনিতে শক্তিহীন ও হীনমন্য করছে প্রতিপক্ষকে, কথা বলার সময় নিজের বিষয়ে ডুবে যাওয়ার উত্তেজনার ভঙ্গিতে মাইকে ঝুঁকে পড়ে সুডৌল স্তনের খাঁজ ও নড়াচড়া উপহার দিয়ে বিচারকমন্ডলী ও দর্শকগণের বুকে জ্বালা ধরাচ্ছে.. এবং সর্বপরি বিচারকদের অকথিত সমর্থনের উত্তরে অনিন্দ্যসুন্দর হাসিতে ওঁদের বারবার মুগ্ধ করছে, তাতে শালিনীর রূপ-সৌন্দর্য্যের অকুল পাথারে হাবুডুবু খেতেই ব্যস্ত তাঁরা!

সবশেষে যেন প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম অনুসারেই সর্বোচ্চ স্থানে শালিনী জয়ী হয়, এবং এবারে রজত মল্লিক হাততালি দিতে ভোলেন না!…

বাড়ি আসার পর শালিনী হাসতে হাসতে পিতার গলা ধরে ঝুলে পড়ে:
-“উম্ম.. কেমন জিতলাম দেখলে তো বাপ্পী,…. হিহিহি..”
-“উম” রজতবাবু ওর ঠোঁটে ডানহাতের তর্জনী চাপেন “এখন আর কোনো কথা নয়,..”
-“উমহম..” শালিনী ছটফট করে উঠে… baba meye sex

-“উম্ম`হ…” শালিনীর নরম তনুটি নিজের সাথে চাপতে চাপতে ওর ঠোঁটে মুখে আগ্রাসী চুম্বন করতে করতে রজতবাবু ওকে নিজের ঘরে নিয়ে আসেন ..”উম্ম্হ.. অম… তুমি আজকে আমায় পাগল করে দিয়েছো!”
-“ওঃ.. উম বাপ্পিইইই…” শালিনী আদূরেপনা করে ওঠে… ঠোঁট মুচকিয়ে হেসে পিতাকে আরও উত্তেজিত করে তোলে..
-“হমম…” শালিনীর নরম তরুণী শরীরটি ভোগ করতে করতে ওকে বিছানায় চিত্ করে ফেলেন ওর পিতা| এক টানে ওর সালোয়ার এবং প্যান্টি একসাথে খুলে ফেলে ছুঁড়ে দেন ঘরের একপ্রান্তে… উন্মুক্ত হয়ে পড়ে ওর ফর্সা মসৃন সুঠাম উরুযুগল…

-“বাপ্পিইইই…” বিছানায় কাতরে ওঠে রজতবাবুর রূপসী দুহিতা… নগ্ন থাইদুটি পরস্পরের সাথে ঘষে…
রজত মল্লিক উত্তেজিত ব্যাঘ্রের মতো বিছানায় উঠে আসেন, শালিনীর দুটি উরু ফাঁক করে ওর কামিজ তুলে দিয়ে প্রকাশিত করেন ওর নরম-ফুলেল, সম্পুর্ন নির্লোম, গোলাপী যোনিপুষ্পটি| দুহাতে ওর দুটি থাই গলার দুপাশে চেপে ধরে মৌখিক আক্রমন করেন সেটির উপর,… প্রথমে সমগ্র যোনিখাতটি চেটে আলতো কামর বসান যোনির রসালো মাংসে… baba meye sex

-“আঃ… মাগো!” শালিনী শীত্কার করে উঠে কাতরে ওঠে দুপাশে বিছানার চাদর খামচে ধরে..
-“উম্ম্ম্হ ..অমঃ..” চুষে চুষে, চেটে, কামড়ে খান রজতবাবু দুহিতার নরম রসালো যোনি,.. তাঁর খাওয়ার চপ চপ শব্দে ঘর মুখর হয়ে ওঠে..
-“আঃ.. বাপ্পী,… কি দুষ্টু তুমিইইই…!” শালিনী যৌনসুখে কেঁপে উঠতে থাকে তার যোনি নিয়ে এহেন হেনস্থায়.. পিতার মাথার চুল মুঠো পাকিয়ে তোলে সে.. “আহহহহঃ ..”

-“ঔম্ম্ম..” শব্দ করে শালিনীর যোনি চুষতে চুষতে এবার ওর পিতা যোনির নরম ফুলের পাপড়ির মতো ঠোঁটদুটি ফাঁক করে ওর সম্পুর্ন গোলাপী অভ্যন্তরে যোনি-গহ্বরটিতে জিভ ঢোকাতে চেষ্টা করেন চাপ দিয়ে,.. না পেরে তিনি ওর যোনির উপরিভাগে সুঁচালো মাংসল অংশটি জিভ দিয়ে বারবার নাড়েন, কামর বসান…
-“আউচ… অঃ..!” শালিনী ঠোঁট কামড়ে গুমরে ওঠে যৌন-উন্মাদনায়,.. baba meye sex

-“হমম” ওর পিতা আবার ওর যোনিটি সম্পুর্ন মুখে চেপে চেপে চুষতে লাগেন শব্দ করে করে,.. যেন সমস্ত রস চুষে খাবেন সেটির এমনি পণ করেছেন তিনি!..
-“আউঃ… বাপ্পী ওটা তোমার পুডিং নাকি!…” শালিনী কাঁপা গলায় শীত্কার করে বলে,.. “আঃ..”
মেয়ের অমন নরম গলায় যৌনমদির শব্দগুলি আরও উন্মাদ করে তোলে রজত মল্লিককে,.. তিনি এবার ওর যোনি থেকে মুখ তুলে উঠে আসেন ওর উপর নিজেকে পাজামা ও জাঙ্গিয়া মুক্ত করে নিজের শক্ত তাগড়াই পুরুষাঙ্গ চেপে চেপে ঢোকান ওর যোনিগহ্বরে..

-“আহ্হঃ…” প্রবেশকালীন যন্ত্রনায় চিবুক ঠেলে দিয়ে শীত্কার করে ওঠে তাঁর সুন্দরী তরুণী ললনা| বিছানার চাদর দুহাতে গুটিয়ে তোলে…
-“আঃ.. উমম.. আঃ.. ওঃ..” সারাদিন গর্জাতে থাকা যৌনজ্বর নিয়ে রজতবাবু তাঁর মেয়েকে উন্মাদের আক্রোশ মন্থন করতে থাকেন খাটে শব্দ তুলে|
-“উম্ম্হ.. বাপ্পী, আঃ..” শালিনী পিতার সাথে যৌনসঙ্গমে লিপ্ত অবস্থায় ওঁর জোরদার মন্থনের ধাক্কায় ধাক্কায় দুলে উঠতে থাকে,.. baba meye sex

পিস্টনের মতো ঢুকছে ও বেরোচ্ছে পিতার শক্ত পুরুষাঙ্গ ওর নরম ফুলেল যোনির ফুঁড়ে ফুঁড়ে,.. দুলে উঠার সময় কামিজের চৌকো গলা থেকে উপচে পড়তে চাওয়া ওর দুটি স্তন ঢেউ তুলে তুলে উথলে উথলে উঠছে….

-“আহঘ্ম্ম্ম… হমম..” মেয়ের যোনিতে লিঙ্গ দৃঢ়প্রবিষ্ট অবস্থায় ওর নরম শরীরটি নিজের সাথে চিপকে নিয়ে ওকে বিছানায় দুতিনবার ওলটপালট করে নিজে চিত্ হন ওকে শরীরের সাথে সাপটে ধরে রজতবাবু,… তলা থেকে ধাক্কা দিয়ে মন্থন করেন কিছুক্ষণ| তারপর আবার ওকে চিত্ করে ফেলে দানবীয় শক্তিতে মন্থন করতে থাকেন,… ওর তনুটিকে পুতুলের মতো উল্টেপাল্টে যৌনসঙ্গম করতে থাকেন তিনি… baba meye sex

-“উম্ম..আঃ..” শালিনীর নরম, খসখসে গোঙানিতে ঘর ভরে উঠেছে,… তারসাথে ওর পিতার জান্তব গুম্রানি ও ওঁর দুটি অন্ডকোষের ওর যোনির তলদেশে বারবার আছরে পরার থপক থপ শব্দ… নিজেকে সম্পূর্ন সমর্পণ করেছে শালিনী, স্ফুরিত ওর ফুলে ওঠা ওষ্ঠাধর…
পাক্কা পনেরো মিনিট মন্থন করে আর নিতে পারেন না রজত মল্লিক| হরহর করে বীর্যস্খলন করতে থাকেন দুহিতার যোনির ভেতরে… গুঙিয়ে ওঠেন পশুর মতো, জান্তব সুখের উল্লাসে|

-“আঃ..” শালিনী নিজের সমস্ত যোনি ও জরায়ু দিয়ে অনুভব করে পিতার গরম থকথকে বীর্যের স্রোত… চোখ বুজে ফেলে সে..

-“উম্ম্হ..” কামমোচনের পর শালিনীর যোনির মধ্যেই নরমতর লিঙ্গটি ঢুকিয়ে রেখে ওর মুখে চোখে খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে চুমু খাচ্ছিলেন রজতবাবু.. হঠাতই যেন সম্বিত ফিরে পেয়ে তাঁর মেয়ে বলে ওঠে “বাপ্পী, দরজাটা পুরো খোলা!”
-“তাতে কি হয়েছে..” baba meye sex

-“দুষ্টু,” শালিনী ঠোঁট ফুলিয়ে মিষ্টি হাসে পিতার উদ্দেশ্যে “তুমি না দিনদিন পাগলা হচ্ছো!” সে পিতার চুল ঘেঁটে দেয়..
-“উম্ম..” ওর নরম ঠোঁটে জম্পেশ চুম্বন করেন রজতবাবু “কারণ তুমি দিনদিন আরও সুন্দরী হচ্ছ!”
-“উম..” শালিনী প্রতিচুম্বন করে পিতাকে “কেমন লাগলো তোমার কচি বৌকে করে..” সে মুখ টিপে হেসে টেরিয়ে তাকায় পিতার পানে..
-“উম্ম.. খুব ভালো, এমন টাটকা কচি শরীর ,,, উমমম!” রজতবাবু শালিনীর নরম ঠোঁট পিষে চুমু খান| তাঁর লিঙ্গ আবার শক্ত হচ্ছে ওর যোনির অভ্যন্তরে…

-“উফ বাপ্পিই!..” সেটা বুঝতে পেরে তাঁর মেয়ে আদূরেভাবে কঁকিয়ে ওঠে তাঁর বিশাল শরীরের নিচে|
-“হমম..” ধীরে ধীরে কোমর চালিয়ে আবার মন্থন করতে শুরু করেন মেয়েকে রজতবাবু,..
-“উফ বাপ্পী, তোমার যে কি রোগ!” পিতার মন্থনের ধাক্কায় আবার দুলতে দুলতে শালিনী ওঁর গলা এবার নিজের মৃনাল বহুলতা দিয়ে জড়িয়ে ধরে|…

 

1 thought on “baba meye sex পিতার রাজকন্যা – 6”

Leave a Comment